ভৌতিক পুকুর

আমি আজকে আমার নানু বাড়ির একটি ভৌতিক পুকুর সম্পর্কে কিছু সত্য ঘটনা শেয়ার করব, আশাকরি আপনাদের ভালো লাগবে। আমার নানুবাড়ি মূলত মুন্সিগঞ্জের দীঘিপাড়ে অবস্থিত, গ্রামের নাম শিলই। শিলই হাই স্কুলের পাশে একটি বিশাল আকৃতির সুন্দর পুকুর রয়েছে, পুকুরের দুইপাশে ছেলে ও মেয়েদের জনয় আলাদা শান বাধানো ঘাট রয়েছে, গ্রামের প্রায় ছোট বড় সবাই এই পুকুরে গোসল করতে আশে। পুকুরটি দেখতে সুন্দর হলেও এখানে ঘটে যায় নানা অতিপ্রাকৃত ঘটনা..

এখন মূল ঘটনায় আসি__ ঘটনা-১ঃ এই পুকুরে কখনও কেউ একা গোসল করতে সাহস পায়না, গোসল করতে গেলেই তাকে নাকানি চুবানি খেয়ে উঠতে হয় অথবা পাড়ে কাছে থাকা অবস্থাতেও পানি এতটা গভির মনে হয় যে সাতরে সিড়ি তে উঠা সম্ভব হয়না। ঘটনা-২ঃ একদিন আমার নানার চাচাতো ভাইয়ের পরিবারে দুই ভাই ওই পুকুরে গোসল করতে নামে ওদের দুজনের বয়স ১০/১২ হবে, ওদের সাথে আরো অনেকেই তখন গোসল করছিলো... এক পর্যায়ে তারা দেখে ওই দুই ভাই সাতার কাটতে কাটতে একসাথে গলাগলি ধরে ডুব দেয় প্রথমে এটা দেখতে স্বাভাবিক লাগলেও সবাই লক্ষ্য করলো ২/৩ মিনিট হয়ে যাচ্ছে তারপরও ওরা ডুব থেকে উঠছে না তখনি পুকুর পাড়ে সবার মধ্যে হইচই পরে যায় সবাই মিলে অনেক খোজাখুজির পরও আর ওদেরকএ পাওয়া যায়না, তখন সবাই ভাবে হয়ত ডুব দিয়ে সাতার কেটে অন্য পাশের সিড়ি দিয়ে উঠে চলে গেছে। যে যার মত গোসল করে বাসায় চলে যায় এদিকে ২/৩ ঘন্টা হয়ে গেছে ওদের বাড়ি ফিরতে না দেখে সবাই ওদেরকে এখানে ওখানে খুজতে শুরু করে, এর মধ্যে একজন এসে খবর দেয় ওদের পুকুরে গোসল করতে দেখেছিলো,তখনি সবাই ছুটে পুকুরের দিকে যায়, আর গিয়ে যা দেখলো তা দেখার জন্য কোনো বাবা-মা ই প্রস্তুত থাকবে না। তারা দেখলো গলাগলি ধরা অবস্থায় দুই ভাইয়ের নিথর দেহ পানিতে ভাসছে, সবাই তারাতারি ওদেরকে পানি থেকে উঠিয়ে নিয়ে এসে দেখলো ওরা মারা গেছে আর যেহেতু ডুবে মারা গিয়েছিলো সেই হিসাবে ওদের পেটে একটুও পানি ছিলনা। ঘটনা-৩ঃ আমাদের নানুদের বাড়ির পাশের আমার এক দূর সসম্পর্কের মামা শুক্রবার জুম্মার নামাজ শেষে ওই পুকুরের পাশের রাস্তা দিয়ে আসতে নেয় এবং একপর্যায়ে তিনি পুকুরের সিড়িতে নামেন পা ধোয়ার জন্য, যেই পানিতে দুই পা নামালেন অমনি কিছু একটা এসে ধারালো নখের সাহায্যে মুহুর্তের মধ্যে ওনার পা খামচে ক্ষত বিক্ষত করে ফেলে। উনি কিছু বুঝার আগেই পুকুরের ঘাট থেকে দ্রুত উঠে আসে, এরপর বাড়িতে এসে সবাইকে ঘটনা শেয়ার করলে ওনাকে তাড়াতাড়ি মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়, ওনায় দুই পায়ে বেশ কয়েকটা সেলাই লাগে। ঘটনা এখানেই শেষ নয়;

বিঃদ্রঃ আপনাদের জন্য পুকুরটির ছবি নিচে দিয়ে দিলাম:



11 comments
Enjoy
Free
E-Books
on
Just Another Bangladeshi
By
Famous Writers, Scientists, and Philosophers 
Our Social Media
  • Facebook
  • Twitter
  • Pinterest
Our Partners

© 2023 by The Just Another Bangladeshi. Proudly created by Sen