কার্ল মার্ক্স “সম্পত্তি” বলতে কী বুঝিয়েছেন?


মার্ক্স “সম্পত্তি” বলতে কী বুঝিয়েছেন? অনেকের ধারণা, সম্পত্তি মানে বস্তুগত মালিকানা প্রসঙ্গ। মার্ক্স সম্পত্তিকে বস্তুগত মালিকানা প্রসঙ্গে দেখেননি। মালিকানা সম্পত্তির একটি রূপ। সাধারনভাবে ম্পত্তি হচ্ছে প্রকৃতিকে মানুষের আত্মস্থ করে নেবার সম্পর্ক। আত্মীকরণের জন্য যে নৈর্ব্যক্তিক সম্পর্কে প্রকৃতির সঙ্গে মানুষকে আবদ্ধ হতে হয় সেটাই সম্পত্তি। এই সম্পত্তি সম্পর্ককে মার্ক্স পুঁজিতে “উৎপাদন সম্পর্ক” বলেছেন। বিপ্লব মানে সেই উৎপাদন সম্পর্কের বদল।“

সেখানে একটা প্রশ্ন তোলা হয়েছিল সমাজতন্ত্র বলতে যে ব্যক্তিগত সম্পত্তির উচ্ছেদ বলে ধারণা আছে মার্ক্স সেটাই বুঝিয়েছিলেন কিনা?

মার্ক্স বদহজম হওয়া একজন প্রবাসী বুদ্ধিজীবী আমার সেই লেখা উদ্দেশ্য করে একটা বিশাল নৌট ফেঁদেছেন। সেই নৌটের উদ্দেশ্য এটাই প্রতিষ্ঠিত করা যে, আমি সম্পত্তি নিয়ে মার্ক্সের কথার ভুল উদ্ধৃতি দিয়েছি। এরপরে তিনি বিশাল লেখায় অনলাইন থেকে মার্ক্সের সম্পদ সম্পর্কে দুটো ইমেজ কৌটেশন সংগ্রহ করে ব্যবহার করে বয়ান করেছেন সম্পদ কী আর সম্পত্তি কী? কিন্তু ঘুনাক্ষরেও কোথাও মার্ক্স কী বলেছেন সেটা উল্লেখ করেননি। এটা বুদ্ধিবৃত্তিক অসততা। তিনি তার পাঠককে সম্পত্তি সম্পর্কে জানবার জন্য গ্রুন্ডিসে পড়বার উপদেশ দিয়েছেন, কিন্তু তাঁকে একাধিকবার গ্রুন্ডিসেতে মার্ক্স “সম্পত্তি” বলতে কী বুঝিয়েছেন সেটা কৌট করে দেখাবার কথা বলা হলেও তিনি সেটা করেননি, বরং নানা অছিলায় পিছলে গেছেন।

সবচেয়ে আপত্তিকর কথা তিনি লিখেছেন সেটা হচ্ছে “যখন আমরা একজন দার্শনিকের লেখা না পড়ে, অন্যের কথা শুনে কিংবা আমাদের নিজস্ব ‘স্পেকুলেটিভ’ ধারণাকে দার্শনিকের বলে গণস্থানে দাবী করে বসি। এতে নিজেকে যেমন জ্ঞানবঞ্চিত করা হয়, তেমনি অন্যকেও বিভ্রান্ত করা হয়। এর অবসান প্রয়োজন।“

এটি একটি প্রকাশ্য চ্যালেইঞ্জ যে আমি স্পেকুলেটিভ ধারণা নিয়ে লিখেছি এবং মার্ক্স পড়িনি। বস্তুত ঘটনা উলটো। তিনিই মার্ক্স পড়েননি এবং না পড়েই মার্ক্সের সম্পত্তি সম্পর্কে ধারণা নিয়ে লিখেছেন। আমিও মনে করি ভ্রান্ত মার্ক্স পাঠের অবসান হওয়া দরকার, এবং মার্ক্স নিয়ে ছদ্ম বিশেষজ্ঞদের তৈরি করা বিভ্রান্তি থেকে বিপ্লবীদের মুক্ত করা দরকার।

এবার আসুন দেখি গ্রুন্ডিসেতে মার্ক্স সম্পত্তি সম্পর্কে কী লিখেছিলেন?

“Property thus originally means no more than a human being’s relation to his natural conditions of production as belonging to him, as his, as presupposed along with his own being; relations to them as natural presuppositions of his self, which only form, so to speak, his extended body.”

Grundrisse, Karl Martx, Page 429

“অতএব সম্পত্তি আসলে উৎপাদনের প্রাকৃতিক পরিমণ্ডলকে মানুষের নিজের করে নেবার সম্পর্কের অধিক কিছু নয়, তার নিজের সত্তাসহ যে পরিমণ্ডল আগে থেকেই পরিগঠিত হয়ে রয়েছে, নিজের সত্তার প্রাকৃতিক পূর্বগঠন হিশাবেই এই পরিণ্ডলের সঙ্গে তার সম্পর্ক, যে পরিগঠন তার শরীরেরই সম্প্রসারণ কেবল এই আখ্যা দেয়া যায়।“

গ্রুন্ডিসে : কার্ল মার্ক্স পৃষ্ঠা ৪২৯

‘প্রকৃতি মানুষের শরীরেরই সম্প্রসারণ কেবল’। অপরদিকে নিজের শরীর বা সত্তাসহ প্রকৃতির পরিমণ্ডল মানুষের নিজ সত্তার প্রাকৃতিক পূর্বগঠন হিশাবেই উপস্থিত। এই পূর্বগঠিত পরিমণ্ডলকে নিজের করে নেবার সম্পর্কই মার্কসের কাছে সম্পত্তি। খুব স্পষ্ট করেই মার্ক্স লিখেছেন। এখানে ভুল বুঝার কোন অবকাশ নেই।

এবার পাঠক আমার নিজের লেখা স্ট্যেইটাসের সাথে মার্ক্সের কথা মিলিয়ে দেখুন তো আমি কোথায় ভুল লিখেছি বা মার্ক্সকে মিস কৌট করেছি?

গ্রুন্ডিসে মার্ক্সিস্ট ডট ও আর জি তে পি ডি এফ হিসেবে পাবেন ফ্রি ডাঊন লৌড করে নেয়া যায়। মার্ক্সের সম্পত্তি সম্পর্কে ধারণা আরো পরিষ্কারভাবে বুঝবার জন্য অগ্রসর পাঠককে জর্মন ভাবাদর্শ পড়বার অনুরোধ জানাই। জর্মন ভাবাদর্শ সম্পত্তি ধারনার রাজনৈতিক দার্শনিক বিচার আর পুঁজি হচ্ছে সেটার সবিস্তারে অর্থশাস্ত্রীয় উপস্থাপন।

তাহলে এই প্রবাসী বুদ্ধিজীবীর এজেন্ডা কী? উনার এজেন্ডা হচ্ছে অনলাইনে আমাকে মূর্খ প্রতিপন্ন করা এবং পক্ষান্তরে নিজেকে দিগগজ প্রমাণ করা। আপনারা খেয়াল করলেই দেখবেন তিনি নানাভাবে প্রকাশ্যে আমাকে হেয় করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন বিরামহীন ভাবে। কখনো কোন লেখার সুত্র ধরে কখনো কোন কমেন্টের সুত্র ধরে। তবে উনি যদি মনে করে থাকেন আমার লেখার সমালোচনা করলেই তিনি তাঁর চিন্তার শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করতে পারবেন; তাহলে স্বাগতম।

আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি; সকল ক্ষেত্রেই এভাবে তাঁর জানাবুঝার ঘাটতি প্রকাশিত হবে। যেমনভাবে আগে হয়েছে।

Enjoy
Free
E-Books
on
Just Another Bangladeshi
By
Famous Writers, Scientists, and Philosophers 
Our Social Media
  • Facebook
  • Twitter
  • Pinterest
Our Partners

© 2023 by The Just Another Bangladeshi. Proudly created by Sen